ঢাকা, শুক্রবার   ২০ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৯

আবারও বছর ঘুরে নামলো রাজশাহীর আম

বাণিজ্য ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:০০, ১৪ মে ২০২২  

সংগৃহীত

সংগৃহীত

রাজশাহীতে বেঁধে দেওয়া সময় মেনে বাগান থেকে আম সংগ্রহ শুরু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার (১৩ মে) প্রথমদিন পাড়া হয়েছে স্থানীয় গুটি জাতের আম।

 

শুক্রবার সকালে বৈশাখে পরিপক্ব হওয়া এই জাতের আম দিয়েই সংগ্রহের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেন বাগানিরা।

এর আগে রাজশাহীতে আম পাড়ার সময় বেঁধে দেয় জেলা প্রশাসন। অসময়ে আম সংগ্রহ বন্ধ রাখতে গত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শুক্রবার থেকে গুটি আম পাড়তে পারছেন চাষিরা। রাজশাহী জেলা প্রশাসনের নির্দেশনানুসারে ১৩ মে থেকে মৌসুম চলবে ২০ আগস্ট পর্যন্ত।

রাজশাহীর ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মুহাম্মদ শরিফুল হক এই ম্যাংগো ক্যালেন্ডার ঘোষণা করেন।

রাজশাহী জেলা প্রশাসন নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী আগামী সপ্তাহে দ্বিতীয় দফায় পাড়া হবে জাত আম গোপালভোগ।

এরপর আমের জাত ভেদে নির্ধারিত সাতটি ধাপে আগস্ট পর্যন্ত চলবে জনপ্রিয় লক্ষ্মণভোগ, রাণীপছন্দ, খিরশাপাত, ল্যাংড়া, অম্রপালি, ফজলিসহ অন্যান্য জাতের আম সংগ্রহ।

চাষিরা গোপালভোগ আম পাড়তে পারবেন ২০ মে থেকে, লক্ষ্মণভোগ ও রানীপছন্দ ২৫ মে থেকে। এছাড়া হিমসাগর বা খিরশাপাত পাড়া যাবে ২৮ মে থেকে, ল্যাংড়া ৬ জুন, আম্রপালি ও ফজলি আম ১৫ জুন, আশ্বিনা ও বারী আম-৪ ১০ জুলাই, গৌড়মতি ১৫ জুলাই এবং সবার শেষে নতুন জাতের ইলামতি আম ২০ আগস্ট থেকে সংগ্রহ যাবে। এভাবে সময় মেনে নামানো হবে রাজশাহীর বিষমুক্ত আম, ছড়িয়ে পড়বে সারাদেশে।

তবে এ সময়ের মধ্যে কেউ নিয়মের ব্যত্যয় ঘটিয়ে আম সংগ্রহ করলে প্রশাসন সেই বাগানি বা ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে। আর ম্যাংগো ক্যালেন্ডার দেখে আম সংগ্রহের বিষয়টি বাগানিরা মানছেন কিনা তা মৌসুমজুড়ে মাঠ পর্যায়ে মনিটরিং করবেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানিয়েছে চলতি মৌসুমে জেলায় আমের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২ লাখ ১৬ হাজার মেট্রিক টন। এ বছর জেলায় সাড়ে ১৮ হাজার হেক্টর জমির বাগান থেকে ৮০০ কোটি টাকার আম বাণিজ্যের সম্ভাবনা রয়েছে।

 

সর্বশেষ
জনপ্রিয়