ঢাকা, বুধবার   ০৬ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ২১ ১৪২৯

ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস কেরানীগঞ্জে

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:১১, ২৩ জুন ২০২২  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অবশেষে স্থায়ী ক্যাম্পাস পেতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে প্রতিষ্ঠিত ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়। ঢাকার কেরাণীগঞ্জ থানার ঘাটারচরে মোট ১৭.০৮৯৪ একর ভূমিতে হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসটি।

গতকাল বুধবার ‘ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন শীর্ষক’ প্রকল্পের আওতায় ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসের জমি হস্তান্তর ও জমি অধিগ্রহণের চেক বিতরণ করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ, ঢাকা জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল হক, ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. আবুল কালাম আজাদ, প্রকল্প পরিচালক রফিক আহমদ সিদ্দিক, রেজিস্ট্রার রেজাউল হক, উপ-রেজিস্ট্রার ড. এম আবু হানীফা, উপ-পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ড. মো. রফিক আল মামুন, শিক্ষা প্রকৌশলী অধিদফতর টিম, কেরাণীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এল,এ).ঢাকা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক, কানুনগো সার্ভেয়ার এবং ঢাকা জেলা প্রশাসনের টিম, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

ঢাকা জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে প্রতিষ্ঠিত ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় স্থায়ী ক্যাম্পাসের জমি হস্তান্তর ও  জমি অধিগ্রহণের চেক বিতরণ করা হয়েছে। শুধুমাত্র মূল মালিকদের জমির টাকা দিচ্ছি। যারা অন্যের জমির টাকার জন্য তদবির করেছেন তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়কে জমি বুঝিয়ে দিতে পেরে আমরা আনন্দিত। ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসের মাধ্যমে মাদরাসা শিক্ষায় নিশ্চয় আরো অধিক গতি সঞ্চার হবে।

উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ বলেন, চেক বিতরণ ও জমি হস্তান্তর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে প্রতিষ্ঠিত মাদরাসার উচ্চশিক্ষা নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণ ও বাস্তবায়ন হচ্ছে। ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণ ও বাস্তবায়ন দেশের আলেম-ওলামা, পীর-মাশায়েখ ও ১৫’শ ফাজিল-কামিল, অনার্স-মাস্টার্স মাদরাসার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের বহুল প্রত্যাশিত স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে। স্থায়ী ক্যাম্পাসের জমি বুঝে পাওয়ার মাধ্যমে মাদরাসা শিক্ষায় নব দিগন্তের সূচনা হলো।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ সরকারের দেওয়া মোট ১৭.০৮৯৪ একর ভূমিতে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণে অর্থায়ন করবে সৌদি আরব। বিশ্বিবদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসের ভবন নির্মাণের পাশাপাশি ইসলাম নিয়ে গবেষণা কেন্দ্র ও বিশাল খেলার মাঠও রাখা হবে।

মূলত, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিক প্রচেষ্টা ও নেতৃত্বে জাতীয় সংসদে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় আইন-২০১৩ পাস এবং রাষ্ট্রপতির সম্মতিতে বহুল প্রতীক্ষিত ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়।

আরও পড়ুন
সর্বশেষ
জনপ্রিয়