ঢাকা, রোববার   ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ২২ ১৪২৯

সবসময় প্রাক্তনের সঙ্গে তুলনা করে প্রেমিকা, পাঁচ কৌশলে তাকে থামান

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯:২৩, ২৪ জানুয়ারি ২০২৩  

সবসময় প্রাক্তনের সঙ্গে তুলনা করে প্রেমিকা, পাঁচ কৌশলে তাকে থামান

সবসময় প্রাক্তনের সঙ্গে তুলনা করে প্রেমিকা, পাঁচ কৌশলে তাকে থামান

তুলনা করা উচিত নয়। এক একজন মানুষ এক এক দিকে সেরা। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে গার্লফ্রেন্ড যদি তার প্রাক্তনের সঙ্গে আপনার তুলনা করে, তবে চুপ করে বসে থাকা নয়। বরং এই পাঁচ কৌশলে তার মুখ বন্ধ করুন- 

মানুষের ভালোবাসার সম্পর্কে নানা জটিলতা দেখা দিতে পারে। এই যেমন আপনি একটি নারীকে ভালোবাসছেন। তাকে নিজের মনে দিয়েছেন ঠাঁই। তার জন্য সব করতে রাজি। তবে তিনি বারবার আপনার সঙ্গে তার আগের বয়ফ্রেন্ডের তুলনা করছেন। এবার এই পরিস্থিতিতে রাগ হওয়া খুবই স্বাভাবিক।

আমরা মানুষ। মস্তিষ্ক সবসময় চলতে থাকে। এই যন্ত্র সুপার কম্পিউটারকেও হার মানায়। তবে বহু সময় খেলা শেষ করে দেয় মন। এই জিনিসটি আবার কোনো অংক বোঝে না। আবেগের তাড়নায় নানা সিদ্ধান্ত নিয়ে বসে। তৈরি হয় জীবনে জটিলতা। তখন বান্ধবী খারাপ কাজ করলেও মুখ থাকে বন্ধ।

অনেক সময় দেখা যায়, আপনি ভালোবাসার সম্পর্কে নিজেকে পুরো নিগড়ে দিচ্ছেন। কিন্তু অপর দিকের মানুষটির থেকে ভালো ব্যবহার পাচ্ছেন না। এমনকী তিনি তখনো পড়ে রয়েছেন সেই পুরনো দুনিয়ায়। এই পরিস্থিতি সামলানো মুশকিল।

এবার আপনার প্রেমিকা যদি তার প্রাক্তনের সঙ্গে রোজকার রোজ তুলনা করেন, তবে সাবধান হয়ে যান। প্রথমেই কয়েকটি ব্যবস্থা নিতে হবে। তবেই আগামীদিনে ভালো থাকতে পারবেন।

তার সঙ্গে কথা বলুন :
আপনি গার্লফ্রেন্ডের সঙ্গে কথা বলুন। এই বিষয়টা যে আপনার পছন্দ নয়, এটা তাকে বলতে হবে জোর গলায়। আর মাথায় রাখবেন, ধীর স্বরে বলে কোনো কিছুর লাভ নেই। বরং স্বর তুলে, স্বাভাবিক রেখে কথাটা বলুন। তবেই তো তার কাছে কোনো বার্তা পৌঁছাবে। না হয় তিনি ধরতেই পারবেন না যে এই বিষয়টি আপনার একদম পছন্দ হয়নি। তাই এই পন্থা সবার প্রথমে ব্যবহার করুন।

তিনি এই ধরনের কথা বললে সঙ্গে সঙ্গে থামান :
আপনি তাকে বোঝাতে পারেন। তারপরও অনেক সময় কাজ হয় না। তিনি বারবার সেই একই কথা বলতে পারেন। তখন সব শুনে নিলে কিন্তু চলবে না। আপনি সঙ্গে সঙ্গে তাকে থামান। বলুন, এভাবে কথা বললে আপনি শুনতে রাজি নন। বরং সেই জায়গা ছেড়ে যে তখনই বেরিয়ে আসতে পারেন, এই বিষয়ে সতর্ক করে দিন।

তাকেও শিক্ষা দিন :
আপনাকে তিনি নিজের প্রাক্তন বয়ফ্রেন্ডের বিষয়ে কথা শোনাচ্ছেন। আপনিও একবারে চুপ থাকবেন না। বরং তাকেও শিক্ষা দিন। তাকে বলুন যে এভাবে কথা বললে চলতে পারে না। তাতে কাজ না হলে আপনিও তার সঙ্গে অন্য নারীর তুলনা শুরু করুন। জানি এই কাজটা করতে খারাপ লাগবে। তবে সেই নিয়ে না ভেবে কাজটা শুরু করে দিন। তবেই তিনি উচিত শিক্ষা পাবেন।

তিনি কি ঠিক কিছু বলছেন?
এখানে একটা কথা বলে রাখা জরুরি, আসলে অনেক সময় আমাদের নিজেদের কিছু ভুল থাকে। এই ভুল থেকে শিক্ষা নিতেই হবে। যেমন আপনি হয়তো কিছু ভুল করেছেন। সেই ভুল নিয়েই তিনি কথা বলছেন হয়তো। আর তিনি হয়তো ঠিকই বলছেন। এই পরিস্থিতিতে সেই কথা কিন্তু শুনতেই হবে। তবেই বাঁচতে পারবেন। নিজেরই ভালো হবে।

বেরিয়ে আসুন :
এত কিছু করার পরও যদি আপনার কথা গার্লফ্রেন্ড না শোনেন, তবে কিন্তু সেই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসা সবার আগে জরুরি। তাই অবশ্যই বিষয়টি নিয়ে একবার ভেবে দেখতে হবে। এভাবে আপনি ভালো থাকবেন না। বরং সম্পর্ক খারাপ হতে থাকতে। অবসাদে চলে যেতে পারেন। তাই এর থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করুন। আপনার জীবনের জটিলতা কাটবে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়