ঢাকা, সোমবার   ২৪ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ১১ ১৪৩১

জামালপুর জেলার ইসলামপুরে বাঙালি ধর্মচর্চা কেন্দ্র উদ্বোধন করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩:২৪, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

জামালপুর জেলার ইসলামপুরে বাঙালি ধর্মচর্চা কেন্দ্র উদ্বোধন করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

জামালপুর জেলার ইসলামপুরে বাঙালি ধর্মচর্চা কেন্দ্র উদ্বোধন করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

জামালপুরের ইসলামপুরে বাঙালি ধর্মচর্চা কেন্দ্র উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে বাঙালির আনন্দযাত্রা শুরু।গতকাল (১৮ সেপ্টেম্বর)সন্ধ্যায় জয়গুরু মোড়, হাসপাতাল গেট সংলগ্ন বাঙালি ধর্মীয় সংগঠনের যাত্রা শুরু। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উক্ত অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল এমপি।

উক্ত অনুষ্ঠানে বাঙালি ধর্মীয় সংগঠনের সভাপতি এমরুল বাঙালির সভাপতিত্বে ও শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন,

উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এড.আব্দুস সালাম, সাংগঠনিক সম্পাদক সর্দার জাকিউল হক, কেন্দ্রীয় বাঙালি সংগঠনের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক খোকন বাঙালি, শিক্ষক, শিল্পী, সাংবাদিক অরুণ ভাস্কর, উদ্দীপন সংগীত শিক্ষালয়ের সভাপতি খোরশেদ আলম, কান্দারচর শাখা সংগঠনের সভাপতি দুদু বাঙালি, কেন্দ্রীয় বাঙালি ধর্মীয় সংগঠনের সদস্য শামসুল হুদা, কেন্দ্রীয় ভেঙ্গুড়া শাখা সংগঠনের সভাপতি হারুন বাঙ্গালিসহ গুরুবাদি ধারার সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ।

সংগঠনের সভাপতি এমরুল বাঙালি বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে মহর আলী বাঙ্গালীর চেয়ে শক্তিশালী কোন বাঙ্গালি চেতনার সাধক আর একজনও পাওয়া যায় না। বিশেষ করে ৭৫ পরবর্তী সময়ে অর্থাৎ বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড পরবর্তী সময়ে বাঙালি জাতীয়তাবাদী চেতনা যখন বিলিন করে দেয়ার চেষ্টা চলেছে। জিয়াউর রহমান যখন বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ প্রতিষ্ঠা করে তখন কথা বলার কেউ ছিলো না, সেই ভয়ানক সময়ে মহর আলী বাঙালি তার বাঙ্গালি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন এবং বাঙালি জাতীয়তা মহর বাঙালিই একই সাথে তিনি বাঙ্গালি ধর্ম নামে বাঙালির দর্শন প্রচার করেছেন, যে ধর্ম মতে বঙ্গবন্ধু বাঙ্গালি জাতির জনক, আর রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম, লালন শাই ও হাসন রাজা হলেন বাঙালির বার্তা বাহক। এই মহৎ সাধক তাঁর অক্ষয় কীর্তির জন্য বাংলাদেশ রাষ্ট্রের কাছে স্বীকৃতির দাবী রাখে। আর আপনি ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী, আপনি চাইলে এই স্বীকৃতি প্রদানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন। আজ আমরা বাঙালি ধর্মীয় সংগঠনের পক্ষ থেকে আমরা তিনটি বিষয়ে অনুরোধ করছি বা দাবি জানাচ্ছি।

আমরা জানি ইসলামী ফাউন্ডেশন বিভিন্ন সাধকের জীবনী গ্রন্থ প্রকাশ করে থাকে, সাধক মহর বাঙালির জীবনী ইসলামী ফাউন্ডেশন ও বাংলা একাডেমী থেকে প্রকাশের ব্যবস্থা করা।

বাঙালী জাতীয়তাবাদী চেতনা বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি এবং বাঙালি দর্শন প্রচারের স্বীকৃতি স্বরূপ স্বাধীনতা পদকের আবেদন করা।মহর আলী বাঙালি প্রবর্তিত দর্শন বাঙালি ধর্মকে ধর্ম মন্ত্রনালয়ের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি প্রদান।

সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সর্বশেষ
জনপ্রিয়